আপনি এখানে
প্রচ্ছদ > সাহিত্য

জাবিতে হচ্ছে ৫ম আন্তর্জাতিক বঙ্গবিদ্যা সম্মেলন

মঈনুল রাকীব, প্রাচ্যনিউজ জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত হচ্ছে আন্তর্জাতিক বঙ্গবিদ্যা সম্মেলন। ২৫ জানুয়ারী ২০১৮ থেকে শুরু হওয়া এই সম্মেলনে বিশ্বের ২০ টি দেশের তিন শত এর অধিক গবেষক অংশগ্রহণ করবেন। চার দিনের এই সম্মেলনে আড়াইশ এর অধিক মৌলিক গবেষণাপত্র উপস্থাপিত হবে। এ সম্মেলন ৫ম বারের মত আয়োজিত হচ্ছে বাংলাদেশের জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে। ইতোমধ্যেই

বঙ্গবন্ধুর প্রয়াণ দিবসে সপ্ত-শোককাব্য

বিষাদস্বদেশ কেন বিষাদে গ্রাস করেছে এ বঙ্গভূমি? কেন এলে আগস্ট ক্ষেতের ফসল কাঁদে এই বাংলার কেন তপ্ত রোদে মাথাল ফেলে কৃষকের ব্যাজার মুখে কথা নেই কেন আগস্ট এলে ধানমন্ডির ব্যথা তরঙ্গাকারে প্রবাহিত হয়- বাঙালির প্রাণে? জানে ,বঙ্গজননী তা জানে। ১৪ আগস্ট, ২০১৬। ২। ক্ষমা করো,স্থপতি তুমি রেখে গেলে পরম একা করে এ জাতিকে নিয়ে গেলে রাজ্যের সব আস্থা এখনো তোমার দৃপ্ত কন্ঠ কিশোরের রক্তে

মিথিলা

মঈনুল রাকীব: মিথিলা, রূপা ও রিতু। তিন বোন। স্কুলে থাকতে রূপার সাথে পরিচয় ছিল। হুমায়ূন আহমেদের গল্পের 'অসম্ভব রূপবতী' ক্যাটেগরির সুন্দরী ছিল এরা তিন বোন। সবচেয়ে রূপসী ছিল মিথিলার। আমি তাঁকে দেখিনি। গল্পটি মিথিলার। আমি যখন ক্লাস নাইনে পড়ি তখন রূপার কাছে শুনেছি মিথিলার কথা। টিফিনের ঘণ্টা বাজলে খেয়ে দেয়ে স্কুলের মাঠের

সরকার পতনে ফরহাদ মজহারের ষড়যন্ত্র

শেখ আদনান ফাহাদ:  ফরহাদ মজহারের পরিচয় আসলে কী? এক কথায় বলা মুশকিল। সাংবাদিক, কবি কিংবা বুদ্ধিজীবী-লেখকের তকমা কি তার জন্য যথেষ্ট? এদেশের শিক্ষিত জনগোষ্ঠীর উল্লেখযোগ্য সংখ্যক একটা অংশ দীর্ঘদিন ফরহাদ মজহারের ভক্তিতে নিজেদের ডুবিয়ে রেখেছিলেন। রেখেছিলেন বললাম এ কারণে, এখন এই ভক্তকুলের একটা বড় অংশ ভক্তি সরিয়ে নিয়েছেন কিংবা অতীতের

কবি খালেদ হোসাইনের ‘চিকিৎসা’র সাথে দুটি কবিতা

কবি খালেদ হোসাইনের ত্রিকাব্য: ১. বাগাড়ম্বর বাঁচায় না বা অস্থিপেশীসংস্থান ধনে-পাতা ক্ষেতের আলে কাকতাড়ুয়া ক্লান্ত সিঁড়ির নিচে মাটির ঘর— বিস্মৃত সিদ্ধান্ত। টায়ার-পোড়া ধোঁয়ায় ভাসে কাঠের বাড়ির দৃশ্য তর্জনে গর্জনে হয় প্রাণশক্তি নিঃস্ব। কবিতা হয় নানা রকম শুনেই ওঠ চমকে যেন তোমার দহলিজে দেখতে পেলে যমকে। বাগাড়ম্বর বাঁচায় না বা অস্থিপেশীসংস্থান মাথার বোঝাটাকে তুমি ভাবছ সোনার শিরস্ত্রাণ। মিশ্ররঙের চিত্রকলায় বিমূর্ত কাঠ-খড়ি ছাতিমতলায় মৃগনাভি আমরা খুঁজে মরি। ২. তোমার হৃৎস্পন্দনে আমার অস্তিত্বের ইশারা দেখো, কোনো

‘কারাগারের রোজনামচা’ সহজলভ্য করুন: প্রভাষ আমিন

প্রভাষ আমিন: শেখ মুজিবুর রহমানের লেখা ‘কারাগারের রোজনামচা’ পড়ছি। এর আগে তাঁর লেখা ‘অসমাপ্ত আত্মজীবনী’র সাথে মিলিয়ে পড়লে বাংলাদেশের মুক্তিসংগ্রামের ইতিহাস জানা যাবে। ধীরে ধীরে একটি জাতিকে স্বাধীনতার আকাঙ্খায় ঐক্যবদ্ধ করতে একজন ব্যক্তিকে কতটা ত্যাগ স্বীকার করতে হয়েছে তার ইতিহাস রয়েছে বই দুটির পাতায় পাতায়। ‘কারাগারের রোজনামচা’র ভূমিকায় বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা

‘কহে বীরাঙ্গনা’র ৫৪তম প্রদর্শনী নিয়ে শুভাশিসের সুভাষণ

শুভাশিস সিনহা: সব মিলিয়ে গতকালকের পরিস্থিতিটা ছিল একদমই অন্যরকম। মৌলভীবাজারের ঘটনা, হবিগঞ্জে ব্রিজ ভেঙে রেলবিপর্যয়, থমথমে অাবহ, এর মধ্যে কমলগঞ্জের এক প্রান্ত থেকে ঢাকায় গিয়ে নাটকের শো করে অাসা একটা লড়াই বলতে হবে। অাগের দিনই সিলেটের সাথে সারা দেশের রেলযোগাযোগ বন্ধ হয়ে গেল। অাসা-যাওয়ার টিকেট কাটা। শো কি ক্যান্সেল হবে? অনিবার্য কারণে

একাত্তরে উত্তাল লন্ডন: একটি মূল্যায়ন

কাউসার চৌধুরীঃ  খবরটি উজ্জ্বল দাশের কাছেই পেয়েছি প্রথম।  উজ্জ্বল দাশ প্রজেক্ট লন্ডন ১৯৭১-এর উদ্যোক্তা ও সমন্বয়কারী। আসলে- 'খবর' নয়, বলা যায় নিমন্ত্রণ। আমার ফেসবুক ইনবক্সে ছোট্ট একটি নিমন্ত্রণ- “বৃটিশ কাউন্সিল-এ একাত্তর ভিত্তিক একটি চিত্র প্রদর্শনী চলছে। সময় পেলে ঘুরে আসুন, ভালো লাগবে”। আমিও আর আগপাছ না ভেবে দৌড় দেই বৃটিশ কাউন্সিলে।

মমতা, পবন, মোদী এবং তিস্তা নদী

শেখ রোকন: ইহকালে তিস্তা নদী অন্যায়ভাবে আটকে রাখার দায়ে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, সিকিমের মুখ্যমন্ত্রী পবন চামলিঙ ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী পরকালে প্রশ্নের মুখে পড়েছেন। তিনজনই সটান নিজেদের দায় অস্বীকার করলেন এবং বললেন, বাকি দু'জনের কারণেই বাংলাদেশের সঙ্গে ন্যায্য সমঝোতায় পৌঁছা যায়নি। তাহলে পরীক্ষা হয়ে যাক, কার দায় কতটুকু। তিনজনকে

‘আসিতেছে ডাকু মাইয়া, চলিতেছে ১ নম্বর আসামী’

কাওসার চৌধুরী: হ্যাঁ ভাই, চলিতেছে ১ নম্বর আসামী- আর, আসিতেছে- অভিমান, ডাকু মাইয়া, শেষ আঘাত আর তেজী মেয়ে! কানফাটা গান, বুকফাটা কাহিনী, ঝাঁকানাকা নৃত্য আর ফাটাফাটি রোমান্স দেখতে হলে চলুন- আজাদ সিনেমা হ’লে! ............এটা আমার নিজস্ব কাপ্তেনি! তবে এই কাপ্তেনির ভিত্তি কিন্তু আছে! গত হপ্তার শেষের দিকে ঢাকার ডিসি সাহেবের সাথে দেখা করতে গিয়েছিলাম-

উপরে