আপনি এখানে
প্রচ্ছদ > আলোড়ন > এগিয়ে চলেছে জাবির সাংবাদিকতা বিভাগের জয়রথ

এগিয়ে চলেছে জাবির সাংবাদিকতা বিভাগের জয়রথ

ক্রীড়া প্রতিবেদক, প্রাচ্যনিউজ


জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তঃবিভাগ ক্রিকেট প্রতিযোগিতা ২০১৮-এ সাংবাদিকতা ও গণমাধ্যম অধ্যয়ন বিভাগের জয়রথ দুর্বার গতিতে এগিয়ে চলেছে। সোমবার কোয়ার্রটার ফাইনালের গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগকে অনায়েসে উড়িয়ে দিয়েছে সাংবাদিকতা ও গণমাধ্যম অধ্যয়ন বিভাগ ক্রিকেট দল। নিতুল শর্মার ঝড়োগতির ব্যাটিংয়ে আন্তর্জাতিক সম্পর্ককে ৮ উইকেটের বিশাল ব্যবধানে পরাজিত করে এ আসরের অন্যতম ফেভারিট দল সাংবাদিকতা ও গণমাধ্যম অধ্যয়ন বিভাগ।

সকাল সাড়ে ৯ টায় শুরু হওয়া ম্যাচে টস জিতে বোলিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন সাংবাদিকতা বিভাগের অধিনায়ক মামুন সর্দার। অধিনায়কের সিদ্ধান্তকে সঠিক প্রমাণ করতে দারুণভাবে বোলিংয়ে চেপে ধরেন বোলাররা। আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের ব্যাটসম্যানরা মামুন সর্দার, শুভ, আসিফ, শাওনদের বোলিং তোপে পড়ে নির্ধারিত ২০ ওভারে মাত্র ১২৬ রান তুলতে সক্ষম হয়। মামুন ও শাওন ২ টি করে উইকেট পান। জবাবে সাংবাদিকতা ও গণমাধ্যম অধ্যয়ন বিভাগ নিতুল শর্মার ঝড়ো ব্যাটিংয়ে মাত্র ১৩.৫ ওভারে জয়ের লক্ষ্যে পৌঁছে যায়। নিতুল ৩৬ বলে অপরাজিত ৭৮ রানের এক দুর্দান্ত ইনিংস খেলেন। এর আগের ম্যাচে ম্যানেজমেন্ট স্টাডিজ বিভাগের বিরুদ্ধে নিতুল অপরাজিত ১১০ রানের এক অনবদ্য সেঞ্চুরী হাঁকান। সে ম্যাচে হ্যাট্রিকসহ ৫ উইকেট পান মামুন সর্দার।
এ জয়ের ফলে সাংবাদিকতা ও গণমাধ্যম অধ্যয়ন বিভাগ প্রথমবারের মত সেমিফাইনালে উঠলো। সেমিফাইনালে অর্থনীতি বিভাগের মুখোমুখি হবে তারা। ম্যান অব দ্যা ম্যাচ নিতুল শর্মার কাছে এই জয় তাই অনন্য এক কীর্তি। নিতুল বলেন,‘নিজের বিভাগকে প্রথমবারের মত সেমিফাইনালে তুলতে আমার যে ভূমিকা রয়েছে তার জন্য আমি গর্বিত। আমি চেষ্টা করবো আমার ব্যাটিংয়ের ধারাবাহিকতা ধরে রেখে বিভাগকে আরো ভাল কিছু এনে দিতে। সেমিফাইনালে আমরা আরো ভাল  খেলতে চাই।’


নিতুল শর্মার আরো একটি দুর্দান্ত ইনিংস
সাংবাদিকতা ও গণমাধ্যম অধ্যয়ন বিভাগের অধিনায়ক মামুন সর্দার বলেন,‘আমরা প্রত্যেকবার টুর্নামেন্টের অন্যতম শক্তিশালী দল হয়ে অংশ নিই। তবে কোয়ার্টার ফাইনালে ভাগ্য আমাদের সহায় না হওয়ায় বিগত বছরগুলোতে সামান্য ভুলে আমরা ছিটকে পড়ি। কিন্তু এ বছর আমার দলের সকল খেলোয়াড়দের ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় আমরা সেমিফাইনালে উঠেছি। আমরা সর্বোচ্চ চেষ্টা করবো এই পারফরমেন্সের ধারাবাহিকতা অক্ষুন্ন রাখতে যাতে করে সাংবাদিকতা ও গণমাধ্যম অধ্যয়ন বিভাগের জন্য আমরা আরো ভাল কিছু আনতে পারি। মাঠে এসে সমর্থন দেয়ার জন্য আমি সকল দর্শক ও শুভাকাঙ্খীদের ধন্যবাদ জানাই। আশা করি পরের ম্যাচেও এই সমর্থন দিতে তারা আসবেন। আমরা আমাদের সর্বোচ্চ চেষ্টা করবো পরের ম্যাচেও ভাল কিছু উপহার দেয়ার জন্য।’

নতুন বিভাগ হিসেবে ক্রীড়াঙ্গনে এই সফলতার ব্যাপারে সাংবাদিকতা ও গণমাধ্যম অধ্যয়ন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক শেখ আদনান ফাহাদ বলেন,‘আমাদের নতুন বিভাগের অনেক সীমাবদ্ধতার মধ্যেও ছেলেদের ক্রিকেটে এই বিজয় অনেক বড় অর্জন। আমি বিজয়ী খেলোয়াড়সহ সকলকে অভিনন্দন জানাই এবং জয়ের ধারা যাতে অব্যাহত থাকে সেই শুভকামনা করি।’

ছবি/কাওসার হামিদ শিমুলে ফেসবুক টাইমলাইন ও নিতুল শর্মার নিকট থেকে সংগৃহীত।

মন্তব্য করুন

উপরে